Home / টপ নিউজ / অনলাইনে কলেজে ভর্তির আবেদন আজ থেকে

অনলাইনে কলেজে ভর্তির আবেদন আজ থেকে

চট্টগ্রাম, ২৬ মে (অনলাইনবার্তা): আজ বৃহস্পতিবার থেকে দেশের সকল সরকারি-বেসরকারি কলেজে একাদশ শ্রেণিতে (উচ্চ মাধ্যমিক) ভর্তিতে অনলাইন ও এসএমএসে আবেদন শুরু হচ্ছে। ৯ জুন রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত এ আবেদন করা যাবে।

অনলাইনে www.xiclassadmission.gov.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে ও টেলিটক মোবাইলের এসএমএসের মাধ্যমে কলেজে ভর্তিতে আবেদন করা যাবে।

সর্বোচ্চ ১০টি কলেজের জন্য অনলাইনে ও মোবাইল এসএমএসে আবেদনের সুযোগ রেখে শিক্ষামন্ত্রণালয় একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নীতিমালা প্রকাশ করেছে।

মাধ্যমিকে এবারের উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ২০১৪ ও ২০১৫ সালের উত্তীর্ণরাও একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারবেন। সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে বাধ্যতামূলকভাবে অনলাইনে শিক্ষার্থী ভর্তি করাতে হবে। যারা ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করেছেন তাদেরকেও এই সময়ের মধ্যে আবেদন করতে হবে। ১৬ জুন একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য মনোনীত শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হবে। বিলম্ব ফি ছাড়া ১৮ থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত ভর্তি হওয়া যাবে।

আর বিলম্ব ফি দিয়ে ১০ থেকে ২০ জুলাই পর্যন্ত ভর্তি হতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। একাদশের ক্লাস শুরু হবে ১০ জুলাই। অনলাইনে ভর্তি-ইচ্ছুক একজন শিক্ষার্থী এক আবেদনেই ১০টি কলেজ পছন্দ দিতে পারবে। অনলাইনে আবেদনের জন্য ১৫০ টাকা দিতে হবে। এর পাশাপাশি এসএমএসে আরও ১০টি কলেজের পছন্দ দেয়া যাবে। তবে এসএমএসে আবেদনের জন্য প্রতি এসএমএসে একটি কলেজের নাম দেয়া যাবে। আর প্রতি এসএমএসের জন্য ১২০ টাকা করে দিতে হবে। এই হিসেবে ভর্তি-ইচ্ছুক একজন শিক্ষার্থী ২০টি কলেজে ভর্তির জন্য আবেদনের সুযোগ পাচ্ছে।

গত বছর অনলাইনে একাধিকবার আবেদনের সুযোগ থাকলেও এবার একবারই আবেদন করা যাবে।

জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে সর্বমোট প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধাক্রম নির্ধারণ করা হবে।

অনলাইনে যেভাবে আবেদন করতে হবে :
অনলাইনে একবারে ১০টি কলেজে আবেদনের জন্য টেলিটক মোবাইল ফোনে এসএমএস অপশনে যেতে হবে। সেখানে CAD লিখে স্পেস দিয়ে BIN লিখে স্পেস দিয়ে নিজ বোর্ডের প্রথম তিন বর্ণ (যেমন : ঢাকা বোর্ড হলে dha) লিখে স্পেস দিয়ে roll লিখে স্পেস দিয়ে পাসের year লিখে স্পেস দিয়ে reg লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

ফিরতি এসএমএসে ১৫০ টাকা কেটে নেয়ার অনুমতি চাওয়া হবে। একইসঙ্গে এসএমএস প্রক্রিয়ায় ভুল থাকলে তাও জানিয়ে দেয়া হবে। টাকা দিতে রাজি থাকলে CAD লিখে স্পেস দিয়ে year লিখে স্পেস দিয়ে PIN লিখে স্পেস দিয়ে বায়োমেট্রিক রেজিস্ট্রেশন করা একটি মোবাইল ফোন নম্বর দিতে হবে।

এরপর আবার ১৬২২২ নম্বরে সেন্ড করতে হবে। তখন ফিরতি এসএমএসে একটি ট্রানজেকশন নম্বর দেয়া হবে। এ নম্বর নিয়ে ভর্তির ওয়েবসাইটে (www.xiclassadmission.gov.bd) গিয়ে আবেদন করতে হবে।

আবেদন কাজ সম্পন্ন করার পর ফরমটি প্রিন্ট করা যাবে। একাধিকবার অনলাইনে আবেদন করা যাবে। কেউ যদি মনে করে একবার ৫টি দু’দিন পর ২টি আবার ৩দিন পর বাকি ৩টি কলেজের নাম যোগ করবে, সে সুযোগও থাকছে।

এসএমএস এর মাধ্যমে আবেদন :
এসএমএসে আবেদন করতে মোবাইলের ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে CAD লিখে স্পেস দিয়ে college এর EIIN নম্বর লিখে group-এর প্রথম দুই লেটার লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের প্রথম তিন লেটার লিখে স্পেস দিয়ে roll লিখে স্পেস দিয়ে year লিখে স্পেস দিয়ে reg নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে shift (মর্নিং বা দিবা, শিফট না থাকলে স) লিখে স্পেস দিয়ে ভার্সন লিখে স্পেস দিয়ে কোটা (যদি থাকে যেমন : মুক্তিযোদ্ধা বা অন্যকিছু) লিখে স্পেস দিয়ে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

ফিরতি এসএমএসে একটি পিন নম্বর দেয়া হবে। একটি এসএমএসে মাত্র একটি কলেজের আবেদন করা যাবে। এ প্রক্রিয়ায় সর্বোচ্চ ১০টি আবেদন করা যাবে।

তবে অন্যান্যবারের মতো এবারও আদালতের রায় নিয়ে নটর ডেম, ঢাকার সেন্ট যোসেফ এবং হলিক্রস কলেজ সরকারি নিয়মের বাইরে নিজস্ব নিয়মে ভর্তি প্রক্রিয়া গ্রহণ করেছে।

x

Check Also

আরো আট নারী ও শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

সাভারের আশুলিয়ায় বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে স্থানীয় একটি কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা দুই ...