Home / অর্থ-বাণিজ্য / এনজিওগুলোকে একহাত নিলেন চুমকি

এনজিওগুলোকে একহাত নিলেন চুমকি

চট্টগ্রাম, ৭ মে (অনলাইনবার্তা): মহিলা    শিশু  বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী  মেহের আফরোজ চুমকি বলেছেন, আমরা শুধুমাত্র সরকারের জবাবদিহিতা নিয়ে কথা বলি কিন্তু এনজিওগুলোর জবাবদিহিতা নিয়ে তেমন কথা বলি না অথচ মুক্তিযুদ্ধের পর থেকে এনজিওর মাধ্যমে যে পরিমাণ অর্থ এদেশে এসেছে, তার সঠিক ব্যবহার হলে বাংলাদেশ অনেক আগেই দারিদ্র্যমুক্ত হতে পারতো

  আমরা যদি ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হতে চাই তাহলে সরকারি বেসরকারি সংস্থাগুলোকে একযোগে কাজ করতে হবে এবং স্বচ্ছতা জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি

বিদেশি দাতাদের খুশি না করে দেশের জনগণের খুশির জন্য কাজ করতে তিনি এনজিওগুলোর প্রতি আহবান জানান।

শনিবার (০৭ মে) সকালে রাজধানীর দোয়েল চত্বরে শিশু একাডেমি প্রাঙ্গণে ঢাকা জেলা এনজিও মেলার উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন তিনি। ঢাকা জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় দুই দিনব্যাপী মেলার আয়োজন করেছে
ঢাকা জেলা এনজিও পরিষদ

ঢাকার জেলা প্রশাসক সালাউদ্দীনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা সুলতানা কামাল, সাবেক উপদেষ্টা গণস্বাক্ষরতা অভিযানের  নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী, এনজিও ব্যুরোর মহাপরিচালক ঢাকা জেলা এনজিও মেলার আহ্বায়ক আকলিমা খাতুন প্রমুখ

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী চুমকি বলেন, এনজিও মাধ্যমে যেন কোনো জঙ্গিবাদ বিস্তার না করতে পারে সে দিকে গভীরভাবে লক্ষ্য রাখতে হবে

রাশেদা কে চৌধুরী বলেন, এমডিজি অর্জনে সরকারের পাশাপাশি এনজিওগুলো যেমন গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রেখেছে, তেমনি এসডিজি অর্জনেও সরকারের পাশে থাকবে বাংলাদেশের এনজিওগুলো

সুলতানা কামাল বলেন, উন্নয়নের সঙ্গে সুশাসনকে যুক্ত করতে হবে। তা না করতে পারলে উন্নয়ন অর্থবহ হবে না সরকার একা সব কিছু করতে  পারবে না। নাগরিকদেরকেও সঙ্গে নিয়ে কাজ  করতে হবে। নাগরিকের  অধিকার  প্রতিষ্ঠা সচেতন নাগরিক গঠনে এনজিওগুলোর ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ

তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে পাকিস্তানিদের তাড়িয়ে দিয়ে একটি ভুখণ্ড পাওয়ার জন্য আমরা মুক্তিযুদ্ধ করিনি। মুক্তিযুদ্ধ ছিল সব ধরনের অন্যায় অবিচার থেকে মুক্তি পাওয়ার সংগ্রাম

x

Check Also

আরো আট নারী ও শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

সাভারের আশুলিয়ায় বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে স্থানীয় একটি কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা দুই ...