Home / অর্থ-বাণিজ্য / কমছে না জ্বালানি তেলের দাম : প্রতিমন্ত্রী

কমছে না জ্বালানি তেলের দাম : প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক :
বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেছেন, আপাতত জ্বালানি তেলের দাম কমছে না। আন্তর্জাতিক বাজার বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে গত বছর তেলের দাম কমলেও বর্তমানে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ছে। একই সঙ্গে বিশ্বব্যাংকও আভাস দিয়েছে আগামীতে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে। তাই আপাতত তেলের দাম কমছে না।

বুধবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক চুক্তি সই অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব বাজারের পরিস্থিতি বিশ্লেষণ করেই সরকার জ্বালানি তেলের দাম না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাই আপাতত জ্বালানির দাম কমানোরও কোনও সম্ভাবনা নেই।

তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমায় আমরাও তেলের দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। জ্বালানি তেলের দাম কমানোর সারসংক্ষেপ তৈরি করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দুবার প্রস্তাব পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু দুবারই প্রস্তাব ফেরত পাঠানো হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে জ্বালানি তেলের শোধনাগার স্থাপন করা হবে। বাংলাদেশ এখন রিফাইন্ড (পরিশোধিত) জ্বালানি তেল আমদানি করে। কিন্তু আমরা এখন একটি রিফাইনারি (শোধনাগার) স্থাপন করব। এটার জন্য ফ্রান্সের প্রতিষ্ঠান টেকনিপের সঙ্গে কারিগরি সহায়তাবিষয়ক একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) সঙ্গে টেকনিপের এই চুক্তি হয়েছে আজ। এই শোধনাগার স্থাপন হলে বাংলাদেশ এখন থেকে অপরিশোধিত তেল এনে শোধন করে সরবরাহ করবে। এতে প্রতিবছর ৭০০ থেকে ৮০০ কোটি টাকা সাশ্রয় হবে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, প্রকল্পটি ১০ বছরের পুরাতন। যা বাস্তবায়নে দুইশ’ কোটি টাকা ব্যয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে ত্রিশ বছরের জন্য জমি বরাদ্দ নেয়া হয়েছে। ৫/৬ বছরের মধ্যে বিনিয়োগ করা অর্থ উঠে আসবে। এ প্রকল্পের মেয়াদ হবে ত্রিশ বছর। চুক্তি করার পর কোম্পানিটি একটি নকশা করবে। নকশা হয়ে গেলে আমরা মূল প্রকল্প নিয়ে আবারো বসবো।
 এসএমএইচ // জানুয়ারি ১৮, ২০১৭

x

Check Also

ফের চালু হয়েছে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম

ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর বাধার কারণে দুই দিন বন্ধ থাকার পর ফের চালু ...