Home / টপ নিউজ / ‘জামায়াত-শিবিরের মদদেই জঙ্গি সংগঠনগুলো নাশকতা চালাচ্ছে’

‘জামায়াত-শিবিরের মদদেই জঙ্গি সংগঠনগুলো নাশকতা চালাচ্ছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক :

জামায়াত-শিবিরের নেতৃত্বেই বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠন দেশজুড়ে নাশকতা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছে চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা পুলিশ। তাদের দাবি, জঙ্গি গ্রুপ নিয়ন্ত্রণ করে জামায়াত-শিবির দেশের বিভিন্ন স্থানে হামলার ছক করছে। নতুন ষড়যন্ত্রের পরিকল্পনা নিয়ে বিভিন্ন জঙ্গিগোষ্ঠীকে মদদ দিয়ে জামায়াত-শিবির মাঠে নামার চেষ্টা করছে বলেও তথ্য পেয়েছে নগর পুলিশ।

রোববার রাত দেড়টার দিকে নগরীর কাঠগড় এলাকা থেকে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের ৫ সদস্যকে গ্রেপ্তার করার পর সোমবার দুপুরে নগর ডিবি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন নগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার (বন্দর) মো. মারুফ হাসান। 

রোববার রাতে গ্রেফতারকৃতরা হল মো. আক্কাছ আলী ওরফে জাহেদুল ইসলাম ওরফে নয়ন (২৩), মো. আতিকুল হাসান প্রকাশ ইমন (২৬), জামশেদুল আলম প্রকাশ হৃদয় (২১), মো.রুবেল (২৬) এবং মো.মহিউদ্দিন (১৮)।

এদের মধ্যে আক্কাছ ছাত্রশিবিরের সাথী পর্যায়ের নেতা বলে জানিয়েছেন গোয়েন্দা কর্মকর্তা মারুফ হোসেন।  বর্তমানে শিবিরের পাশাপাশি আনসারুল্লাহর সঙ্গে সম্পৃক্ত এই আক্কাছ বাকি চারজনকে নিয়ে নিজের ভাড়া বাসায় গোপন বৈঠকে বসেছিলেন বলে জানিয়েছেন মারুফ।

‘আক্কাছ স্বাধীনতাবিরোধী একটি দলের ছাত্রসংগঠনের সাথী।  তার নেতৃত্বে তার ‍ভাড়া বাসায় বৈঠক হচ্ছিল।  আমাদের কাছে পর্যাপ্ত তথ্যপ্রমাণ আছে যে তারা গোপন কোন নীলনকশা বাস্তবায়নের জন্যই বৈঠকে বসেছিল, বলেন মারুফ হোসেন।

চট্টগ্রাম ভূজপুর থানার দাঁতমারা ইউনিয়নের আবুল খায়েরের ছেলে আক্কাছ আলী, আতিকুল হাসান নগরীর ডবলমুরিং থানার পাঠানটুলীর মেখ মুজিব রোডের মো. ফেরদৌসের ছেলে, জামশেদুল আলম চট্টগ্রাম হাটহাজারী থানার আমানবাজার এলাকার আব্দুর রহিমের ছেলে, রুবেল চট্টগ্রাম রাউজান থানার পূর্ব গুজরার আমির হামজার ছেলে ও মহিউদ্দিন চট্টগ্রাম রাঙ্গুনিয়া থানার মো. ইসমাইলের ছেলে। এসময় তাদের কাছ থেকে ব্যবহৃত ২টি ল্যাপটপ , ৭টি মোবাইল ও শতাধিক জিহাদি লিপলেট উদ্ধার করা হয় বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের লক্ষ্য উদ্দেশ্যের সাথে এক সাথে কাজ করছে শিবির। জামায়াত শিবির আনসারুল্লাহ বাংলা টিমসহ অন্য জঙ্গিগ্রুপদের সঙ্গে কাজ করছে। জঙ্গি গ্রুপদের সহযোগিতাও করছে তারা। এমনকি দেশে বিভিন্ন স্থানে নাশকতা চালাতে পরিকল্পনা নিচ্ছে জামায়াত-শিবির।’

আনসারুল্লাহ বাংলা টিম এটি এখন জামায়াত-শিবিরের নতুন নাম উল্লেখ করে মারুফ হাসান বলেন, ‘স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াত-শিবির আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের ব্যানারে কাজ করছে। এটি এখন তাদের নতুন নাম। দেশে নানান যে জঙ্গিগ্রুপ ছিল তাদেরকে দিয়েই জামায়াত-শিবির সক্রিয়ভাবে কাজ করানোর চেষ্টা করছে। নিজেরা এ ধরনের ষড়যন্ত্রের লিপ্ত হচ্ছে।’

চট্টগ্রাম সীতাকুণ্ড থেকে গ্রেপ্তার হওয়া আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের বেশ কয়েকজন সদস্যের সাথে এদের যোগসূত্র ছিল উল্লেখ করে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নগর গোয়েন্দা পুলিশে উপ কমিশনার মো. মারুফ হাসান বলেন, ‘চট্টগ্রামে সীতাকুণ্ডসহ বিভিন্ন সময় গ্রেপ্তার হওয়া আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সদস্যদের সাথে তাদের যোগাযোগ ছিল। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক ৫ জনই এমন তথ্য দিয়েছে।’

নগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার (বন্দর) মো.মারুফ হোসেন জানিয়েছেন, আটক পাঁচজনের বিরুদ্ধে পতেঙ্গা থানায় সন্ত্রাস দমন আইনে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।  মঙ্গলবার তাদের আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমাণ্ডে নেয়ার আবেদন ‍জানানো হবে।

 আরডি/ এসএমএইচ // ১ আগস্ট ২০১৬

x

Check Also

আরো আট নারী ও শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

সাভারের আশুলিয়ায় বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে স্থানীয় একটি কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা দুই ...