Home / জেলা সংবাদ / জেএমবি সদস্য বুলবুল রিমান্ডে

জেএমবি সদস্য বুলবুল রিমান্ডে

চট্টগ্রাম, ১৪ জুন (অনলাইনবার্তা): জেএমবি সদস্য ফুয়াদ ওরফে মো. বুলবুলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে মহানগর হাকিম হারুনুর রশিদ এ আদেশ দিয়েছেন।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী  জানান, ২০১৫ সালের ২৫ মে বাকলিয়া থানার সৎসঙ্গ আশ্রম সংলগ্ন নদী থেকে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধারের মামলায় বুলবুলকে গ্রেফতার দেখিয়ে ৭ দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন জানায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। শুনানি শেষে আদালত পাঁচদিন রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

২০১৫ সালের ৫ অক্টোবর নগরীর কর্ণফুলী থানার খোয়াজনগরে তৎকালীন অতিরিক্ত উপ কমিশনার (এডিসি) বাবুল আক্তারের নেতৃত্বে নগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একটি টিম অভিযান চালিয়ে বুলবুলসহ পাঁচ জেএমবি সদস্যকে গ্রেফতার করেছিল।  এদের মধ্যে জেএমবির চট্টগ্রাম অঞ্চলের বিস্ফোরক শাখার প্রধান মো. জাবেদ ওরফে জায়েদকে নিয়ে ডিবি আরেকটি অভিযানে গেলে সে গ্রেনেড বিস্ফোরণে মারা যায়। বুলবুলসহ বাকি ‍চার সদস্যের কাছ থেকে পুলিশ জঙ্গি কর্মকাণ্ড সম্পর্কিত বিভিন্ন চাঞ্চল্যকর তথ্য উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

সম্প্রতি বুলবুলের লেখা একটি চিরকুট ফাঁস হওয়ার পর পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু আক্তার হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জেএমবির সম্পৃক্ততা আছে বলে ধারণা করছে পুলিশ।  বিষয়টি নিয়ে অনুসন্ধানে নেমেছে পিবিআই।  এ ব্যাপারে বুলবুলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড আবেদন জানায় পিবিআই।

ফাঁস হওয়া চিরকুটে জাবেদকে ‘হত্যা’ এবং জিজ্ঞাসাবাদে নির্যাতনের অভিযোগ এনে বাবুল আক্তারসহ গ্রেফতারকারী পুলিশ সদস্যদের হত্যার আহ্বান জানিয়েছে ফুয়াদ ওরফে মো.বুলবুল।  বর্তমানে কারাবন্দি বুলবুল জেএমবির চট্টগ্রাম অঞ্চলের সেকেন্ড ইন কমান্ড বলে জানিয়েছিল নগর গোয়েন্দা পুলিশ।  এর আগেও কয়েকবার বুলবুলকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

x

Check Also

আরো আট নারী ও শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

সাভারের আশুলিয়ায় বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে স্থানীয় একটি কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা দুই ...