মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন নার্সারির বাচ্চাদের মতো খেলছেন বলে মন্তব্য করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ। তিনি বলেন, নার্সারির শিশুরা যেভাবে একে অপরের সঙ্গে ঝগড়া করে সেভাবেই ঝগড়া করছেন ট্রাম্প ও কিম। শুক্রবার নিউ ইয়র্কে এই মন্তব্য করেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী। খবর রয়টার্সের।

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ‘উন্মাদ’ বলে মন্তব্য করেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প পাল্টা কিমকে ‘পাগল’ বলে উল্লেখ করেন। দু’পক্ষের এই তীব্র বাক্য বিনিময় থামাতেই ল্যাভরভ বলেন, দুইজনেরই মাথা গরম। তিনি বলেন, উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা চুপ করে দেখে যাওয়া কখনোই উচিত নয়, আবার কোরীয় উপদ্বীপে যুদ্ধের কোনো অর্থ হয় না। দু’পক্ষকেই আলোচনায় বসার আহবান জানান তিনি। তবে চীনের সঙ্গে মিলে আলোচনার মাধ্যমে আমাদের এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করতে হবে বলে উল্লেখ করেন ল্যাভরভ। নার্সারির শিশুদের মতো লড়াই করলে চলবে না। কারণ দুইজন শিশু লড়াই করলে থামানো কঠিন হয়ে পড়ে।

এর আগে জাতিসংঘের সাধারণ সভার অধিবেশনে ভাষণ দিতে গিয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছিলেন, শেষ পর্যন্ত উত্তর কোরিয়াকে ধ্বংস করে দেওয়া ছাড়া আমেরিকার আর কোনো উপায় থাকবে না। মার্কিন প্রেসিডেন্টের এমন হুমকিতে ক্ষুব্ধ কিমের হুঁশিয়ারি, ট্রাম্পকে এই মন্তব্যের চরম মূল্য দিতে হবে।

তিনি বলেছেন, ইতিহাসে ঘটেনি এমন কঠোর পদক্ষেপ করার কথা ওয়াশিংটনের বিরুদ্ধে ভাবা হচ্ছে। ট্রাম্পের ‘রকেট ম্যান’ কিম আরো বলেন, জাতিসংঘের মঞ্চে মার্কিন প্রেসিডেন্ট মানসিক রোগীর মতো যেভাবে একটি সার্বভৌম রাষ্ট্রকে সম্পূর্ণ ধ্বংস করার অনৈতিক ইচ্ছে প্রকাশ করেন, তাতে সাধারণ মানুষ তার বিচারবুদ্ধি ও কান্ডজ্ঞান নিয়েই প্রশ্ন তুলেছে।
এসএমএইচ// রোববার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭। ৯ আশ্বিন ১৪২৩