Home / টপ নিউজ / ‘তাজ্জব হয়ে যাওয়ার মতো তথ্য আসছে’

‘তাজ্জব হয়ে যাওয়ার মতো তথ্য আসছে’

চট্টগ্রাম, ১৭ জুলাই (অনলাইনবার্তা): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, সাম্প্রতিক সন্ত্রাসী হামলার তদন্তে তাজ্জব হয়ে যাওয়ার মতো তথ্য আসছে। তবে, তদন্তের স্বার্থে এখনই কিছু বলা হচ্ছে না।

রোববার (১৭ জুলাই) বিকেলে গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান। এশিয়া-ইউরোপ মিটিংয়ে (আসেম) যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রীর তিন দিনের মঙ্গোলিয়া সফর নিয়ে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সন্ত্রাসী হামলার তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন তদন্তের সবটুকু বলা যাবে না। যতটুকু বলা প্রয়োজন ততটুকুই বলা হচ্ছে। তদন্তের স্বার্থে সবকিছু বলাও হয় না।’
তদন্তের অনেকগুলো ধাপ রয়েছে, সেগুলো পর্যায়ক্রমে এগুচ্ছে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, সব তথ্য দেওয়া হলে তাজ্জব হয়ে যেতে হবে। তদন্ত শেষে সবাই সবকিছু বুঝতে পারবেন।

প্রধানমন্ত্রী এসময় তদন্তাধীন বিষয় নিয়ে বেশি ‘খোঁচাখুঁচি’ না করারও আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘আমাদের কাজ করতে দিতে হবে।’

গুলশানে হামলার পর কিছু রাজনৈতিক দল ও নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে জাতীয় ঐক্যের কথা বলা হচ্ছে, এ বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্য হয়ে গেছে। গ্রামে গ্রামে কমিটি হচ্ছে। সর্বস্তরের মানুষ সচেতন হয়ে উঠেছে। এবার ঈদের নামাজে সনাতন ধর্মের যুবকেরা পাহারা দিয়েছে। এটা বাংলাদেশের জন্য অভূতপূর্ব অর্জন।

সন্ত্রাস প্রতিরোধে সবাইকে আরও সচেতন হওয়ারও আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, যারা পুড়িয়ে মারে, যারা যুদ্ধাপরাধী তাদের কথা আলাদা। তাদের সঙ্গে আমাদের ঐক্য করার কিছুই নেই। যাদের ঐক্য হলে পড়ে সন্ত্রাস সত্যিকার অর্থে দূর করা সম্ভব সে ঐক্য হয়ে গেছে।

অপর এক প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটা আতঙ্ক সৃষ্টি করা এদের উদ্দেশ্য ছিলো। তাদের সে উদ্দেশ্য বানচাল করতে আমাদের নিজেদের নিরাপত্তা বলয় তৈরি করতে হবে। আত্মবিশ্বাস নিয়ে সবাইকে চলতে হবে। মানুষ সচেতন হলে, স্বতস্ফূর্তভাবে নিজেরাই প্রতিরোধ করতে পারবে।

শেখ হাসিনা জান‍ান, মঙ্গোলিয়ার উলানবাটরে অনুষ্ঠিত এশিয়া-ইউরোপ মিটিংয়ে (আসেম) অংশ নিয়ে তিনি বিশ্বনেতাদের কাছে বলেছেন, বাংলাদেশ সবসময় অসাংবিধানিকভাবে ক্ষমতা দখলের বিরুদ্ধে।

তিনি বলেন, আমাদের আসেম সম্মেলন শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ আগে ফ্রান্সের নিচে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে নিরীহ অনেক মানুষকে হত্যা করা হয়। বিশ্ব সম্প্রদায়ের পাশাপাশি বাংলাদেশও এই হামলার নিন্দা জানিয়েছে।

‘এরপর সম্মেলন চলাকালে শুক্রবার রাতে তুরস্কে সেনা অভ্যুত্থানের চেষ্টা করা হয়। আমরা সেটারও নিন্দা জানাই। কারণ বাংলাদেশ সবসময়ই অসাংবিধানিকভাবে ক্ষমতা দখলের বিরুদ্ধে।’

তিনি জঙ্গিবাদ বিষয়ে সরকারের অবস্থানের কথাও আসেমে বলেছেন বলে জানান। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আসেমে অংশ নিয়ে আমি জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদের বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের জিরো টলারেন্স নীতির কথা বিশ্বনেতাদের জানিয়েছি। কেবল তাই নয়, বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছি, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসে মদতদাতা, অর্থদাতা ও প্রশিক্ষণদাতাদের খুঁজে বের করতে হবে।

তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ এখন কেবল বাংলাদেশের নয়, বৈশ্বিক সমস্যা। এই বৈশ্বিক সমস্যা মোকাবেলায় বাংলাদেশ এখন বিশ্বসম্প্রদায়ের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদারও।

x

Check Also

আরো আট নারী ও শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

সাভারের আশুলিয়ায় বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে স্থানীয় একটি কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা দুই ...