Home / আন্তর্জাতিক / তুরস্কে সেনা অভ্যুত্থান ব্যর্থ : নিহত ২৬৫, গ্রেফতার দেড় সহস্রাধিক

তুরস্কে সেনা অভ্যুত্থান ব্যর্থ : নিহত ২৬৫, গ্রেফতার দেড় সহস্রাধিক

চট্টগ্রাম, ১৬ জুলাই (অনলাইনবার্তা): তুরস্ক সরকারকে উৎখাতের লক্ষ্যে দেশটির সামরিক বাহিনীর একাংশের অভ্যুত্থানের চেষ্টার ঘটনায় অন্তত ২৬৫ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এ ঘটনায় দেড় সহস্রাধিক গ্রেফতার হয়েছেন।

শনিবার (১৬ জুলাই) বাংলাদেশ সময় সকাল সোয়া ১০টার দিকে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো এ তথ্য জানায়।

এর আগে শুক্রবার (১৫ জুলাই) দিনগত রাতে সেনাবাহিনী হেলিকপ্টারের সহায়তায় রাজধানী আঙ্কারায় পুলিশের বিশেষ বাহিনীর প্রধান কার্যালয়ে হামলা চালানো হয়। এতে প্রাথমিকভাবে কমপক্ষে ১৭ জন পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়।

তুরস্কে সামরিক বাহিনী দেশটির সরকার উৎখাতের প্রচেষ্টার ঘটনায় পাঁচ জেনারেল, ২৯ কর্নেলসহ মোট ৭৫৪ সেনা সদস্যকে আটক করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৫ জুলাই) দিনগত রাত থেকে শুরু হওয়া এই অভ্যুত্থান প্রচেষ্টায় এখন পর্যন্ত ৬০ জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে ১৭ জন পুলিশ সদস্য রয়েছেন। এছাড়া নিহতদের মধ্যে অভ্যুত্থান সমর্থকদের ১৬ জন রয়েছে বলেও জানান দেশটির পুলিশ প্রধান।

সামরিক বাহিনীর একাংশ এই অভ্যুত্থানে অংশ নেয়। তবে সরকারের দ্রুত পাল্টা ব্যবস্থায় উদ্দেশ্য বিফল হয় অভ্যুত্থানকারীদের। ইতোমধ্যেই অভ্যুত্থান প্রচেষ্টায় অংশ নেওয়া সেনারা আত্মসমর্পণ করতে শুরু করেছেন বলে জানা গেছে।অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার সময় নিখোঁজ তুরস্কের সেনা প্রধান জেনারেল হুলুসি আকারকে উদ্ধার করেছে সেদেশের নিরাপত্তা বাহিনী।

শুক্রবার ( ২৫) রাতে অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা শুরুর পরপরই বিদ্রোহী সেনাদের একটি গ্রুপ তাকে জিম্মি করে আনকারার একিনসিলার বিমান ঘঁটিতে নিয়ে যায়। পরে সেখানে অভিযান চালিয়ে তাকে উদ্ধার করে তুরস্কের সেনাবাহিনীর সদস্যরা। একিনসিলার বিমান ঘাঁটি তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারা থেকে ৩৫ কিলোমিটার উত্তর পশ্চিমে অবস্থিত।

এর আগে সেনা প্রধান নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় তুরস্কের ভারপ্রাপ্ত সেনা প্রধান হিসেবে জেনারেল উমিত দুনদারকে নিয়োগ দিয়েছিলো সরকার।

তুরস্কে ডানপন্থি সরকারকে হটাতে সেনাবাহিনীর অভ্যুত্থান ব্যর্থ হয়েছে। সরকারের পক্ষে রাজপথে অবস্থান নিয়েছে জনতা, পুলিশ আটক করছে বিদ্রোহী সেনা সদস্যদের।

তুরস্কজুড়ে এ পর্যন্ত ১,৫৬৩ জন সেনা সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে একজন কর্মকর্তা রয়টার্সকে জানিয়েছেন।

তবে রাজপথে অভ্যুত্থানকারীদের কর্তৃত্ব হারানোর প্রকাশ ঘটলেও তাদের পক্ষ থেকে এক ই-মেইল বার্তায় বলা হয়েছে, লড়াই চালিয়ে যাবেন তারা।

অটোমান সাম্রাজ্যের পতনের পর কামাল আতাতুর্ক প্রতিষ্ঠিত আধুনিক তুরস্কে গেল এক যুগের ডান শাসনে সেনাবাহিনীর বহু কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করা হয়, যা নিয়ে সামরিক বাহিনীতে ক্ষোভ রয়েছে।

তবে অভ্যুত্থানচেষ্টার নেতৃত্ব কারা ছিলেন কিংবা তাদের পেছনে কারও সমর্থন ছিল কি না, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

x

Check Also

আরো আট নারী ও শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

সাভারের আশুলিয়ায় বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে স্থানীয় একটি কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা দুই ...