চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জিতলো পাকিস্তান দল। সরফরাজ আহমেদের দল এখনো সংবর্ধনায় ভাসছেন দেশে। সেই ইংল্যান্ডেই এখন চলছে পাকিস্তানের মেয়েদের বিশ্বকাপ মিশন। যে মিশনের লিগ পর্বে চিরশত্রু ভারতের মুখোমুখি হওয়ার আগেই দুঃসংবাদ পাকিস্তান শিবিরে। সুপারস্টার অল-রাউন্ডার বিসমাহ মারুফের বিশ্বকাপ শেষ। এই সপ্তাহে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলার সময় ফিল্ডিং করতে গিয়ে হাতের ইনজুরিতে পড়েছিলেন বিসমাহ।

বিসমাহকে হারানো বড় ধাক্কা পাকিস্তান দলের জন্য। রোববার ভারতের সাথে লড়াই। সেই লড়াইয়ের আগে বিসমাহর জায়গায় নতুন একজনকে দলে টেনেছে পাকিস্তান। আরেক অল-রাউন্ডার ইরাম জাভেদ ফিরেছেন দলে। গত বছরের শেষটায় জাতীয় দলে শেষ খেলেছেন ইরাম। তারপর ছিটকে পড়েছিলেন। ২৫ বছরের খেলোয়াড় এবার সুযোগ পেলেন সমবয়সী বিসমাহর ইনজুরিতে। ৭ ওয়ানডেতে অবশ্য মাত্র ৩৭ রান ও ৩ উইকেট তার।

বিমাহ সেই হিসেবে অনেক বড় তারকা। আর প্রমাণিত বটে। পাকিস্তানের ক্রিকেট বলতে যে কজন মেয়ে সবার আগে আসেন তাদের একজন বিসমাহ। ৯২ ওয়ানডে খেলে বাঁহাতি ব্যাটার ১১ ফিফটিতে ২৬.৩৫ গড়ে ২০৮২ রান করেছেন। ৫৫ ইনিংসে লেগব্রেকে নিয়েছেন ৩৫ উইকেট। এখন বয়স ২৫। সেই ২০০৬ সালে খুবই অল্প বয়সে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই তার ওয়ানডে অভিষেক। এবারের বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১০ রান করেছিলেন। নিয়েছিলেন ১ উইকেট। তার আগে প্রস্তুতি ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৩৯ এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৭৫ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। এখন টানা দুই ম্যাচ হেরে ভারতের সাথে মুখোমুখি হওয়ার আগে সেই বিসমাহকে খুব দরকারই ছিল পাকিস্তানের। কিন্তু বিসমাহর তো বিশ্বকাপই শেষ।

এসএমএইচ // বৃহস্পতিবার, ২৯জুন ২০১৭