প্রস্তাবিত বাজেটে ব্যাংক আমানতের ওপর আরোপিত আবগারি শুল্ক হার কিছুটা কমানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। বুধবার সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ তথ্য জানান।
বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সংসদে বাজেট পেশ করা হয়েছে। এখন এ বিষয়ে আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তিনি আরো বলেন, এ শুল্ক আগেও ছিল। তবে এবার হারটা বাড়ানো হয়েছে। এরপর থেকেই আপনারা কথা বলা শুরু করেছেন। বাজেটে এ শুল্ক বহাল থাকবে কিন্তু হারটা কিছুটা কমানো হতে পারে
গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে অর্থ প্রতিমন্ত্রী আবগারি শুল্ক প্রত্যাহারের বিষয়ে যে বক্তব্য দিয়েছেন সে বিষয়ে জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, প্রতিমন্ত্রী ওই কথা বলার মতো দায়িত্বশীল অবস্থানে নেই। ‘হি ইজ নট রেসপনসিবল পারসন।’
উল্লেখ্য, গত ১ জুন জাতীয় সংসদে বাজেটে ব্যাংক আমানতের ওপর আবগারি শুল্ক ৫০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮০০ টাকা করার প্রস্তাব করার পর থেকেই দেশব্যাপী আলোচনায় আসে বিষয়টি। ওই প্রস্তাবে বলা হয়েছে, বছরের যেকোনও সময় ব্যাংক হিসাবে এক লাখ টাকার বেশি স্থিতি থাকলে আবগারি শুল্ক বিদ্যমান ৫০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮০০ টাকা করা হবে। পাশাপাশি ১০ লাখ থেকে এক কোটি টাকা পর্যন্ত এক হাজার ৫০০ টাকার বদলে দুই হাজার ৫০০ টাকা, এক কোটি থেকে পাঁচ কোটি টাকা পর্যন্ত সাত হাজার ৫০০ টাকার বদলে ১২ হাজার টাকা এবং পাঁচ কোটি টাকার বেশি লেনদেনে ১৫ হাজার টাকার বদলে ২৫ হাজার টাকা আবগারি শুল্ক আরোপের প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী। সেইসাথে ২২হাজার থেকে এক লাখ টাকার নিচের একাউন্ডে আগে দেড়শ টাকা আবগারি শুল্ক থাকলেও প্রস্তাবিত বাজেটে সেটি তুলে দেয়া হয়।