দক্ষিন চট্রগ্রামের যাত্রীদের জন্য পটিয়ার ভেল্লাপাড়া ব্রিজটি মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে।যে কোন মুহুর্তে বড় ধরনের দুর্ঘটনার সম্ভাবনা রয়েছে।চট্টগ্রাম শহর থেকে আসার পথে ব্রিজের বাম পাশে মরণ ফাঁদটি তৈরি করে রেখেছে স-ও-জ কতৃপক্ষ।ইচ্ছাকৃতভাবেই এরা দায়সারা ভাবে কিছু বালির বস্তা দিয়ে ব্রিজের সংযোগ সড়ক টিকিয়ে রাখতে চাই। অথচ এই ব্রিজেই অল্প কিছুদিন আগে গার্মেন্টস কর্মী বোঝাই একটি বাস ভাঙ্গা সড়কটির কারনেই নদী গর্ভে পড়ে যাই,  এতে ৪৫ জন শ্রমিক গুরুতর আহত হয়।এদের ভাগ্য ভাল ও আল্লাহর রহমত ছিল, নদিতে বাঁশের মাছার উপর বাসটি গিয়ে পড়ে, না হয় নদী গর্ভে সব শ্রমিকের সলিল সমাধি হত। যাত্রীদির দাবি একটাই ব্রিজের বাম পার্শে মজবুত রিটার্ণিং ওয়াল অতিসত্তর নির্মাণ করা হোক।
যদি তা না হয় আবারো যে কোনো গাড়ি লোকবল নিয়ে নদী গর্ভে বিলিন হতে পারে।এ ব্যাপারে স ও জ সহ সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সূদৃষ্টি কামনা করছে দক্ষিন চট্রগ্রামের যাত্রী সাধারণ।