রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে ছবি নির্মাণ করছেন অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড। ছবির নামও ‘রোহিঙ্গা’। এরই মধ্যে এই নির্মাতা টেকনাফের নাফ নদী, শাহপরীর দ্বীপ ও উখিয়ায় ঘুরে এসেছেন। মূলত একজন নিষ্ঠাবান ও সাহসী সাংবাদিকের চোখ দিয়ে পরিচালক রোহিঙ্গাদের জীবন তুলে ধরবেন। আর এই ছবিতে সাংবাদিকের ভূমিকায় অভিনয় করছেন নায়িকা অধরা খান।

এই চলচ্চিত্রে অভিনয় প্রসঙ্গে অধরা বলেন, ‘আমি ছবিতে সাংবাদিকের ভূমিকায় অভিনয় করছি। তবে কবে থেকে শুটিং শুরু হবে তা এখনো বলতে পারছি না। কারণ আমার ছবির পরিচালক শুটিংয়ের বিষয়টি গোপন রাখতে চান। যদি সবাই জানে আমরা শুটিং করছি, তা হলে সেখানে ভিড় বাড়বে, এতে শুটিং করতে সমস্যা হবে।’

নিজের চরিত্র নিয়ে অধরা বলেন, ‘আমি এরই মধ্যে বেশ কয়েকবার রোহিঙ্গাদের দেখতে গিয়েছি। নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী পাশে দাঁড়িয়েছি। আমার মনে হচ্ছে এই ছবির মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের সংকটকে ভালো করে তুলে ধরা যাবে। তা ছাড়া এখন যেভাবে আমাদের দেশে এসে তারা আশ্রয় নিয়েছে, সেভাবে ’৭১ সালে আমাদের দেশের মানুষ ভারতে আশ্রয় নিয়েছিল। এখনকার প্রজন্ম সেটা জানে কিন্তু দেখতে পায়নি। আমি মনে করি রোহিঙ্গাদের অবস্থা দেখে কিছুটা হলেও অনুমান করা যায়, আমাদের দেশের মানুষ একাত্তর সালে কত কষ্ট করেছে।’

এই ছবিতে কোনো নায়ক নেই। রোহিঙ্গাদের জীবন কাহিনিকেই প্রাধান্য দিয়ে ছবিটি নির্মাণ করা হচ্ছে। এরই মধ্যে ছবির কিছু শুটিং হয়েছে। পরবর্তী শুটিং কিছুদিনের মধ্যে শুরু হবে বলে জানা গেছে। নায়িকা অধরা খান পরিচালক শাহিন সুমনের হাত ধরে চলচ্চিত্রে পা রাখেন। তার অভিনীত ‘পাগলের মতো ভালোবাসি’ ছবিটি সেন্সরে জমা পড়েছে। ‘মাতাল’ নামে আরেকটি ছবির কাজ চলছে।

 এসএমএইচ//  রোববার, ২২ অক্টোবর ২০১৭, ৭ কার্তিক ১৪২৪