Home / টপ নিউজ / সংসদে ইনুর ক্ষমা প্রার্থনা

সংসদে ইনুর ক্ষমা প্রার্থনা

চট্টগ্রাম, ২৫ জুলাই (অনলাইনবার্তা):সংসদ সদস্যদের ‘চোর’ বলার পর অব্যাহত সমালোচনার মুখে সংসদ অধিবেশনে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।
সোমবার দুপুরে মন্ত্রিসভায় সমালোচনার পর সন্ধ্যায় সংসদ অধিবেশনে সংসদ সদস্যদের তোপের মুখে পড়েন জাসদ সভাপতি ইনু।
এর পরিপ্রেক্ষিতে তিনি নিজের বক্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করলে সংসদ সদস্যরা তাতে সম্মত না হয়ে ক্ষমা চাওয়ার দাবি তোলেন।
তখন তথ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি মনে করি গণমাধ্যমে আমার বরাত দিয়ে যে বক্তব্য এসেছে, সেজন্য আমি ক্ষমা চাইছি, আমি আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।”
বিবৃতি দিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেও পার পাননি তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু; টিআর ও কাবিখা প্রকল্পে চুরির জন্য সাংসদসহ জনপ্রতিনিধি ও আমলাদের দায়ী করে বক্তব্য দেওয়ায় মন্ত্রিসভার বৈঠকে সহকর্মীদের তোপের মুখে পড়তে হয়েছে তাকে।
সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে ইনু ওই বক্তব্যের জন্য আরেক দফা দুঃখ প্রকাশ করেছেন বলে বৈঠকে উপস্থিত একাধিক মন্ত্রী জানিয়েছেন।
একজন মন্ত্রী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, “এ নিয়ে আলোচনার পর প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ওই বক্তব্য দিয়ে তিনি (তথ্যমন্ত্রী) নিজেই নিজেকে চোর বানিয়েছেন।”
রোববার ‘বাংলাদেশ সামিট: টেকসই উন্নয়ন ২০১৬’ শীর্ষক দুদিনব্যাপী সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি তো এমপি, আমি জানি, টিআর কীভাবে চুরি হয়। সরকার ৩০০ টন দেয়, এর মধ্যে এমপি সাহেব আগে দেড়শ টন চুরি করে নেয়। তারপর অন্যরা ভাগ করে। সব এমপি করে না। তবে এমপিরা করেন।”
ওই বক্তব্য নিয়ে সংবাদমাধ্যমে খবর আসার পর রাতে তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে ইনু বলেন, “আমি নিজে একজন সংসদ সদস্য হিসেবে মাননীয় সংসদ সদস্যবৃন্দসহ সকল জনপ্রতিনিধিদের আন্তরিকভাবে সম্মান করি এবং সেই সম্মান অক্ষুণ্ন রয়েছে। তারপরও কেউ যদি অনভিপ্রেতভাবে দুঃখ পেয়ে থাকেন, সেজন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত।”
তথ্যমন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে খবর ও তার দুঃখ প্রকাশের বিবৃতির অনুলিপি খামে করে সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে সব সদস্যের দেওয়া হয়।

x

Check Also

আরো আট নারী ও শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

সাভারের আশুলিয়ায় বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে স্থানীয় একটি কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা দুই ...