Home / অর্থ-বাণিজ্য / ‘সিগারেটের স্তর কাঠামো তুলে দেওয়া হবে’

‘সিগারেটের স্তর কাঠামো তুলে দেওয়া হবে’

চট্টগ্রাম, ৯ মে (অনলাইনবার্তা): আসছে বাজেটে সিগারেটের ওপর আরোপিত করের স্তর কাঠামো তুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান।

সোমবার (০৯ মে) রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের ‘কেমন তামাক-কর চাই? শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশে প্রতিবছর ১ লাখ লোক তামাকজনিত অসুখে মারা যাচ্ছেন। দ্রুত এই মৃত্যুর হার কমিয়ে ২০৪০ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে তামাকমুক্ত করতে

‘বর্তমান সরকার দেশকে তামাকমুক্ত করতে এরই মধ্যে পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। আগামী বাজেটে তামাকের উপর ‘স্যালব সিস্টেম’ সিগারেটের উপর স্তর পদ্ধতিও তুলে দেওয়া হবে। তামাকের উপর ২ শতাংশ স্বাস্থ্য উন্নয়ন সারচার্জ আরোপ করা হবে।’

বাংলাদেশ ইউনাইটেড ফোরাম এগেনিস্ট টোবাকো আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন-জাতীয় সংসদ সসদ সদস্য সাবের হোসেন চৌধুরী, আব্দুল মতিন খসরু, নবী নেওয়াজ, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালের অতিরিক্ত সচিব রোকসানা কাদের, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ড. হোসেন জিল্লুর রহমান, পিকেএসএফের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলিকুজ্জামান প্রমুখ।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান জাতীয় অধ্যাপক বিগ্রেডিয়ার (অব.) আব্দুল মালিক।

সভায় বিভিন্ন প্রস্তাবনা তুলে ধরা হয়। এগুলো হচ্ছে, সিগারেটের উপর করারোপের জন্য ব্যবহৃত মূল্য স্তর প্রথা তুলে দেওয়া, আসছে বাজেটে তামাক পণ্যের উপর ৯ ধরনের কর আরোপ করা, সব ধরনের সিগারেটের উপর একই হারে সুনিদিষ্ট এক্সাইজ ট্যাক্স আরোপ করা, বিড়ির উপর খুচরা মূল্যের ৪০ শতাংশ সমপরিমাণ সুনিদিষ্ট এক্সাইজ ট্যাক্স আরোপ করা, জর্দা এবং গুলের উপর খুচরা মূল্যের ৭০ শতাংশ সুনিদিষ্টি এক্সাইজ ট্যাক্স আরোপ করা, তামাকের চুল্লি প্রতি বাৎসরিক ৫ হাজার টাকা লাইসেন্সিং ফি আরোপ করা, বিড়ির উপর উচ্চ হারে সুনিদিষ্টি এক্সাইজ ট্যাক্স আরোপ করা উল্লেখযোগ্য।

x

Check Also

আরো আট নারী ও শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

সাভারের আশুলিয়ায় বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে স্থানীয় একটি কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা দুই ...