ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল-আবাদি শনিবার রিয়াদ সফরে এসেছেন। জানা গেছে, প্রতিবেশী দুই আরব দেশের মধ্যে উষ্ণ সম্পর্ক সত্ত্বেও কৌশলগত বন্ধন আরো জোরদারই তার এ সফরের লক্ষ্য।

আবাদি এমন এক সময়ে রিয়াদ সফরে এলেন যখন সৌদি জ্বালানীমন্ত্রী খালেদ আল ফালেহ বাগদাদ সফর করছেন। সেখানে তিনি তেলের মূল্য বাড়ানোর মধ্যদিয়ে দু’দেশের অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদারের আহ্বান জানিয়েছেন। এদিকে শনিবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনও সৌদি আরব সফরে এসেছেন। গত কয়েক মাসের মধ্যে রিয়াদে এটি তার দ্বিতীয় সফর। রিয়াদ ও দোহার মধ্যে তিক্ত সম্পর্ক প্রশমিত করার চেষ্টা তার এ সফরের উদ্দেশ্য।

যৌথ সৌদি-ইরাকী সমন্বয় পরিষদ গঠনের লক্ষে আবাদি রবিবার এক বৈঠকে মিলিত হবেন। এ পরিষদ গঠনের লক্ষ্য সম্পর্ক জোরদার করা। বৈঠকে টিলারসনও অংশ নেবেন। ইরাক রিয়াদের সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্ক আরো নিবিড় করতে চাচ্ছে। বিশেষ করে তেলের মূল্যের নিম্নগতির কারণে উভয় দেশই ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় তারা অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদারে আগ্রহী। এছাড়া রিয়াদ ইরাকে ইরানের প্রভাব কমানোরও চেষ্টা করছে।  উল্লেখ্য, সুন্নি শাসিত সৌদি আরব ও শিয়া অধ্যুষিত ইরাকের মধ্যে বছরের পর বছর ধরে সম্পর্কের টানাপড়েন চলছিল। কিন্তু সাম্প্রতিক কয়েক মাস ধরে দু’দেশের মধ্যে উষ্ণ সম্পর্ক বিরাজ করছে।

  এসএমএইচ//  রোববার, ২২ অক্টোবর ২০১৭, ৭ কার্তিক ১৪২৪